কিভাবে আপনার নেটেলার একাউন্ট নিরাপদ রাখবেন

অনলাইন থেকে নেটেলার এবং বেট৩৬৫ একাউন্ট কেনার আগে অব্যশই এই পোস্টটি পডুন।

আমরা প্রাইসই শুনে থাকি আমাদের bet365 এবং নেটেলার একাউন্ট থেকে টাকা গায়েব হয়ে যায়, বা কেউ হ্যাক করে টাকা নিয়ে যায়, যদি আমারা এই বিষয়ে একটু সচেতন হই তাহলে আমাদের একাউন্ট গুলো নিরাপদ থাকবে। আসল কথা হল আমাদের নিজেদের ভুলের জন্য স্ক্যামাররা টাকা নিতে পারে, আমারা যদি জানতে পারি কিভাবে আমরা স্ক্যামারের ফাঁদে পা দিই তাহলে একাউন্ট নিরাপদ রাখতে পারব। চলুন জেনে নিই কি কি কারনে নেটেলার থেকে টাকা গায়েব হতে পারেঃ

১। অন্য কাউকে দিয়ে একাউন্ট করিয়ে নেওয়া
২। স্প্যাম মেইল, হ্যাকারের বিভিন্ন ফিসিং এবং কিলগার সম্পর্কে ধারনা না থাকা
৩। একাউন্টের নিরাপত্তা বিষয়ক সেটিং সম্পর্কে না জানা বা ব্যাবহার না করা

এ ছাডাও আরো অন্য কোন কারনে টাকা গায়েব হতে পারে, তবে ৯৯% আপনার একাউন্ট নিরাপদ থাকবে যদি উপরের ৩টি বিষয় সম্পর্কে আপনার ধারনা থাকে। আমরা এখন এই বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব।

অন্য কাউকে দিয়ে একাউন্ট করিয়ে নেওয়া

আপনি নিজেই কিভাবে নেটেলার একাউন্ট খুলবেন জানতে এখানে ক্লিক করুন।

যদি আপনি নিজে একাউন্ট খুলতে না পারেন, কোন পরিচিত বা বন্ধুদের দিয়ে একাউন্ট খুলে নেন তাহলে আপনার একাউন্ট অবশ্যই ঝুকির মধ্য থাকবে যদি আপনি পাসওয়ার্ড চেঞ্জ করেন তারপরেও। কারন আপনি পাসওয়ার্ড চেঞ্জ করলেও সে ফরগেট পাসওয়ার্ড থেকে বা নেটেলার/বেট৩৬৫ এর সাথে কথা বলে আপনার তথ্য দিয়ে (আপনার একাউন্ট যেহেতু সে করেছে তার কাছে আপনার সকল তথ্যই আছে) আপনার অজান্তেই আপনার একাউন্টে টু মেরে ডোকে পরবে। ডোকে যদি টাকা থাকে তাহলে মহুর্তেই গায়েব করে দিবে এমন কি আপনার একাউন্ট ক্লোজও করে দিতে পারে।

তাহলে কি কাউকে দিয়ে একাউন্ট করানো যাবেনা? অবশ্যই যাবে, যখন কাউকে দিয়ে একাউন্ট করিয়ে নিবেন সে ক্ষেত্রে আপনার নেটেলার একাউন্ট নিরাপদ রাখতে কিছু নিয়ম মাথায় রাখতে হবে, যখন একাউন্ট করতে দিবেন ডকুমেন্টের সাথে আপনার ব্যাক্তিগত ইমেইল এড্রেস ও মোবাইল নাম্বারটাও দিবেন, যাতে রিজিস্ট্রেশনের সময় দিতে পারে। একাউন্ট নেওয়ার পর পাসওয়ার্ড, সিকিউর আইডি চেঞ্জ করে নিবেন এবং সাথে আপনার ইমেইল একাউন্টিও সিকিউর করবেন। আপনি চাইলে যে কোন সময় ইমেইল এড্রেস এবং মোবাইল নং চেঞ্জ করে নিতে পারবেন। চেঞ্জ করতে আপনার একাউন্ট লগইন করে সেটিং > একাউন্ট থেকে Personal information Phone Number এর পাশে থাকা Edit এ ক্লিক করে নতুন নাম্বার দিয়ে Save এ ক্লিক করুন, তারপর আপনার নাম্বারে পাঠানো কোডটি দিয়ে ভেরিফাই করে নিন, তাহলে আপনার নতুন নাম্বার সেট হয়ে যাবে। ইমেইল এড্রেস চেঞ্জ করতে Email preferences থেকে Email address এর পাশে থাকা Edit এ ক্লিক করে নতুন ইমেইল বসিয়ে Save এ ক্লিক করুন। গুগল অথেন্টিকেটর নেটেলার একাউন্ট নিরাপদ রাখার জন্য ইমেইল একাউন্ট সিকিউর করতে ইমেইলের পাসওয়ার্ড চেঞ্জ করবেন, ইমেইল একাউন্ট খোলার সময় একটা রিকভারি ইমেইল এবং মোবাইল নাম্বার দিতে হয় সেটাও চেঞ্জ করে নিবেন তারপর আপনার ইমেইল অবশ্যই ২ ফ্যাক্টর অথেন্টিকেশন অন রাখবেন। আপনার ইমেইলে প্রবেশ করতে চাইলে আপনার নাম্বারে OTP (One Time Password)  বা আপনার ব্যাক্তিগত ডিভাইস থেকে পারমিশন না দেওয়া পর্যন্ত কেউ আপনার ইমেইলে প্রবেশ করতে পারবেনা। আপনার ইমেইল সিকিউর রাখার কারন হল নেটেলার পাসওয়ার্ড রিসেট করতে অবশ্যই ইমেইলে নেটেলার লিংক পাঠাবে। সেই লিংকে ক্লিক করে নতুন পাসওয়ার্ড সেট করতে হবে।

আপনার ইমেইল যদি নিরাপদ হয়, স্কেমার কিন্তু বসে থাকবেনা, অন্য উপায়ে চেষ্টা চালিয়ে যাবে, স্কেমার আপনার ইমেইলটাই চেঞ্জ করে নতুন ইমেইল সেট করে প্রবেশের চেষ্টা করবে। হঠাৎ যদি দেখেন আপনার একাউন্টে কিছু টাকা যোগ হয়েছে তাহলে খুশি না হয়ে দ্রত নেটেলারে যোগাযোগ করে জানিয়ে দিন বা মেইল করে দিন, এটার কারন হল অনেক সময় নেটেলারে যোগাযোগ করলে ওরা লাস্ট ট্রানজেকশন আর তারিখ জানতে চায়, তার জন্য স্কেমারের এই কৌশল। নেটেলারে কথা বলে যখন স্কেমার জানাবে ইমেইলে প্রবেশ করতে পারছেনা, তখন নেটেলার ভেরিফাই করার জন্য কিছু প্রশ্ন করবে (আগেই বলেছি আপনার সব তথ্য তার কাছে আছে), সঠিক উত্তর পেলে ধরেই নিবে তিনিই একাউন্টের মালিক তাই আপনার আসল ইমেইল ডিলিট করে নতুন ইমেইল সেট করে দিবে। যদিও নতুন নিয়মে এটা কঠিন হয়ে যাবে কারন স্কেমারের জ্বালায় নেটেলার নতুন নতুন পলিসি নিয়ে আসছে, এখন বেসিরভাগ কেস এ নতুন করে তারিখ সহ ভেরিফাই সেল্পি চায়।

নেটেলার একাউন্ট নিরাপদ রাখতে হ্যাকারের ফাঁদ স্প্যাম মেইল ফিসিং এবং কিলগার সম্পর্কে জানুননেটেলারের নামে হ্যাকারের ফিশিং মেইলকম বেশি সব নেটেলার ব্যাবহারকারী ফেস করেছেন হ্যাকারের ফাঁদ ফিশিং। ইমেইলে নেটেলারের নামে বিভিন্ন অফার বা নেটেলারে তথ্য হালনাগাদ অথবা নেটেলার একাউন্ট ক্লোজ এলার্ট নামে বিভিন্ন ফেক মেইল আসে হ্যাকারের কাছ থেকে, যখন আপনি তাদের লিংকে ক্লিক করবেন, তখন আপনি হ্যাকারের ফাঁদে পা দিলেন। নেটেলারে লগইন/সাইন আপ ইন্টারফেসের নিচে একটা নোটিস থাকে সেটা কি খেয়াল কছেন? চলুন দেখি নোটিশটিনেটেলার একাউন্ট নিরাপদ রাখার জন্য সতর্কবার্তা

নোটিশের অর্থ হল

আপনার অ্যাকাউন্টটি নিরাপদ রাখুন

“নেটেলার আপনাকে ফোন, ইমেল, স্কাইপি বা সামাজিক নেটওয়ার্কগুলি (ফেসবুক, টুইটার, ইনস্টাগ্রাম ইত্যাদি) দ্বারা আপনার পাসওয়ার্ড বা সিকিউর আইডি জিজ্ঞাসা করবে না। নিশ্চিত হয়ে নিন যে আপনি কেবলমাত্র জেনুইন নেটেলার সাইট https://member.neteller.com এবং মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনটিতে আপনার লগইন তথ্য দিচ্ছেন। আপনি যদি সন্দেহজনক কিছু দেখতে পান তবে দয়া করে নেটেলারের সহায়তার জন্য যোগাযোগ করুন।”

বুজতেই পারছেন নেটেলার এই বিষয়ে খুবই এলার্ট এবং এই বিষয়ে অনেক কেস ফেস করে থাকে। নেটেলারের নামে আপনার কাছে যত মেইল আসুক, কোন মেইল আপনি শিউর না হয়ে ওপেন করবেননা, এমনকি আপনি কোন ভাবেই কোন জায়গায় আপনার লগইন/সিকিউরিটি ইনফরমেশন (ইউজার নেম, পাসওয়ার্ড, সিকিউরিটি কোড) দিবেননা। মনে রাখবেন হ্যাকারের লিংক দেখতে নেটেলারের লিংকের মতই হবে, হ্যাকার লিংকে ক্লিক করলে যে ইন্টার ফেস আসবে সেটাও নেটেলারের মতই মনে হবে। তাই যে কোন জায়গায় লিংক ক্লিক করে যদি নেটেলারের লগইন চায় তাহলে ১০০ ভাগ শিউর হয়ে নিবেন।আর সব সময় ব্রাউজারের ক্ষেত্রে Google Chrome বা Mozilla Firefox ব্যাবহারের চেষ্টা করবেন, কারন VPN ব্রাউজার ব্যাবহার নেটেলার একাউন্টের জন্য নিরাপদ নয়।হ্যাকারের কিলগার সম্পর্কে জানুনসর্বশেষ যে বিষয়টা বলব সেটা হল,আপনার পারসোনাল ডিভাইসে (মোবাইল, ল্যাপটপ, কম্পিউটার)কোন App বা Software ইন্সটল করতে সাবধান থাকবেন যাতে কোন ভাবেই স্প্যাই ওয়্যার না থাকে। তাহলে আপনার সকল তথ্য ৩য় পক্ষের কাছে আপনার কাছে বিনা নোটিশেই পাঠিয়ে দিবে। আপনার ব্যাক্তিগত ডিভাইস ছাডা কোন সাইবার ক্যাপে বা বন্ধুর কম্পিউটারে আপনার নেটেলার একাউন্ট প্রয়োজন ছাডা লগইন করবেননা, keylogger দিয়ে আপনার তথ্য চুরি করতে পারে।

একাউন্টের নিরাপত্তা বিষয়ক সেটিং ব্যাবহার করা

নেটেলার একাউন্ট নিরাপদ রাখার জন্য নেটেলারে অনেক নিরাপত্তা বিষয়ক ফিচার আছে, আমরা অবহেলা করে হোক বা না জেনে হোক আমারা যদি সেগুলো ব্যাবহার না করি তাহলে আমাদের একাউন্ট অনিরাপদ থেকেই যায়। চলুন তাহলে আপনার একাউন্ট নিরাপদ রাখার জন্য প্রয়োজনিয় কিছু নিয়ম দেখেনিই, প্রথমে আপনার নেটেলার একাউন্ট লগইন করে বামে মেনু থেকে সেটিং > সিকিউরিটি তে ক্লিক করুন, শুরুতে দেখতে পাবেননেটেলার সেটিং পেজ

Account Security এখানে পাসওয়ার্ড আর সিকিউরিটি আইডি নামে যে দুটি অপশন দেখতে পাচ্ছেন এই দুইটি তথ্য আপনার নেটেলার একাউন্ট নিরাপদ রাখার মূল। তাই নিয়মিত আপনার পাসওয়ার্ড আর সিকিউর আইডি চেঞ্জ করুন মাসে অন্তত একবার। পাসওয়ার্ড চেঞ্জ করতে Edit এ ক্লিক করুন তিনটি টেব দেখতে পাবেন প্রথম টেবে বর্তমান পাসওয়ার্ড পরের দুটি টেবে নতুন পাসওয়ার্ড দিয়ে Save এ ক্লিক করুন, আপনার পাসওয়ার্ড চেঞ্জ হয়ে গেছে। Secure ID চেঞ্জ করতে Reset Secure ID তে ক্লিক করুন, ইমেইলে নেটেলার পাঠানো Reset secure ID link  এ ক্লিক করে ৬ডিজিটের নতুন Secure ID  দিয়ে Save এ ক্লিক করুন।

Authentication Methods   আপনার নেটেলার একাউন্ট লগইন করে সেটিং > সিকিউরিটি থেকে Authentication Methods  অপশন থেকে মোবাইল Enable  করে রাখবেন, তাহলে আপনি যখনই লগইন করবেন আপনার মোবাইলে নেটেলার OTP (One time Password) পাঠাবে, তাহলে কেও পাসওয়ার্ড জানলেও আপনার নেটেলার একাউন্টে প্রবেশ করতে পারবেনা, আপনি চাইলে সেখানে ইমেইলও Enable করে রাখতে পারেন তাহলে একই সাথে আপনার মোবাইল আর ইমেইল দুই জায়গায় OTP পাঠাবে। আপনার ব্যাক্তিগত ডিভাইসে যাতে প্রতিবার লগইন করার সময়  OTP প্রয়োজন না হয় সে ক্ষেত্রে লগিনের সময় Don’t ask me again on this Device  এ ঠিক মার্ক দিয়ে দিতে পারেন।

Trusted Devices  এ আপনার একাউন্ট ব্যাবহারের বিশ্বস্ত ডিভাইস গুলো দেখতে পারবেন। যদি আপনার কোন ডিভাইস মোবাইল কিংবা কম্পিউটার সেল করে দেন বা চুরি হয়ে যায় তাহলে Manage এ ক্লিক করে ডিভাইসটি মুছে দিন।

Trusted Recipients and Merchants এ আপনি আপনার মার্চেন্ডের তথ্য দিয়ে রাখতে পারেন, যেমন আপনি যদি নিয়মিত বেট৩৬৫ বা 1xbet অথবা অন্য কোন নেটেলার মার্চেন্ডে নিয়মিত লেনদেন করেন তাহলে Manage এ ক্লিক করে সেই মার্চেন্ডের তথ্য দিয়ে দিন তাহলে সহজেই এবং নিরাপদে আপনি সেই মার্চেন্ডের সাথে লেনদেন করতে পারবেন।

Two-step authentication এটা নেটেলার একাউন্ট নিরাপদ রাখার খুবই একটি উপযোগী টোলস, উপরে ইমেইল আইডি নিরাপত্তার জন্য এই ফিচার ব্যাবহারের কথা বলেছিলাম, এটা অব্যশই ব্যাবহার করবেন আপনার নেটেলার একাউন্ট নিরাপদ রাখার জন্য। Two-step authentication চালু করতে Google Authenticator app or Dekstop Extension  install  করুন , আপনার নেটেলারের সেটিং > সিকিউরিটি থেকে Two-step authentication Enable  এ ক্লিক করুন একটি QR কোড দেখতে পাবেন, Google Authenticator  অ্যাপ ওপেন করে  (+) এ ক্লিক করে QR কোডটি Scan করলে ৩০সেকেন্ড কাউনডাউন রত একটি কোড দেখতে পাবেন, কোডটি দিয়ে Next এ ক্লিক করুন, মনে রাখবেন কোডটির লাইফ টাইম কিন্তু ৩০সেকেন্ড। আপনার Two-step authentication চালু হয়েছে। এই সব বিষয় যদি খেয়াল রাখেন তাহলে আপনার নেটেলার একাউন্ট অনেকটা নিরাপদ থাকবে। আসল কথা হল আমরা হ্যাকার নিয়ে যত আলোচনাই করিনা কেন সচেতন না হলে কোন লাভ হবেনা, কারন হ্যাকার হয়তু এখন এমন বিষয় নিয়ে ভাবছে যা আমরা টাকা হারানোর পর ওই বিষয় সম্পর্কে জানতে পারব। আমরা চেষ্টা করেছি আমাদের নেটেলার একাউন্ট নিরাপদ রাখার বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করতে তারপরেও যদি কোন বিষয় বাদ পডে যায় বা কোন বিষয় সম্পর্কে জানার প্রয়োজন হয় কমেন্ট করতে পারেন। ধন্যবাদ

আপনার মন্তব্য জানান...